<

p style=”text-align: justify;”>এবার বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্দেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিল বান্দ্রা মেট্রোপলিটন কোর্ট। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বার্তা ছড়ানোর অভিযোগে এই মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিল বান্দ্রা মেট্রোপলিটন কোর্ট। জানা গেছে, মুনওয়ার আলী সায়েদ নামের এক কাস্টিং ডিরেক্টরের অভিযোগের ভিত্তিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম সুত্রে জানা গেছে, বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্দেলের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩এ, ২৯৫এ, ১২৪ ধারায় দুজনের বিরুদ্ধে মামলা নথিভূক্ত করার আবেদন জানিয়েছিলেন মুনওয়ার আলী সায়েদ। তার এই অভিযোগের ভিত্তিতে ‘এফআইআর’র নির্দেশ দিল বান্দ্রা মেট্রোপলিটান কোর্ট।

কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্দেল

মুনওয়ার আলী সায়েদ নিজের অভিযোগে আদালতকে জানিয়েছেন, তিনি বেশ কিছুদিন ধরে কাস্টিং ডিরেক্টর হিসেবে বলিউডে কাজ করছেন। সোশ্যাল মিডিয়া এবং সংবাদমাধ্যমে কঙ্গনা এবং তার দিদি রঙ্গোলি চান্দেলের সাক্ষাৎকার, মন্তব্য দেখছেন। দুই জন মিলে ক্রমাগত বলিউড তারকাদের আক্রমণ করে চলেছেন। নেপোটিজম, ফেভারিটিজম, মাদক যোগের প্রসঙ্গ তুলে ক্রমাগত মানহানিকর মন্তব্য করে চলেছেন। এমন কী ধর্মীয় উসকানিমূলক মন্তব্যও করেছেন। কিসের কারণে ক্রমাগত এমন মন্তব্য কঙ্গনা এবং তার দিদি করে চলেছেন? তা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন বলে মনে করেন মুনওয়ার।

উল্লেখ্য, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে নানা রকমের মন্তব্য করে খবরে থেকেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। কখনও বলিউডে মাফিয়া রাজ, আবার কখনও নেপোটিজম নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন তিনি। দাবি করেছেন বলিউডের অধিকাংশ তারকা মাদকাসক্ত। আবার কখনও বলিউড ইন্ডাস্ট্রিকে আবর্জনা বলেও আক্রমণ করেছেন। এছাড়াও বহু অভিনেত্রীকেও আপত্তিকর ভাষায় নিশানা করেছেন বলিউডের এই অভিনেত্রী।

সম্প্রতি সারা ভারত জুড়ে বিরোধিতা সত্ত্বেও রাজ্যসভার অধিবেশনে কৃষি বিলগুলি পাশ করিয়ে নেয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। আর এর সপক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি’র পোস্ট শেয়ার করে কঙ্গনা এক পোস্টে লিখেছিলেন, ‘মোদিজি কেউ ঘুমিয়ে থাকলে তাকে জাগানো সম্ভব। যে ভুল বুঝছে, তাকে ঠিকটা বোঝানোও যায়। কিন্তু যে ঘুমানোর ভান করে কিংবা না বোঝার অভিনয় করে, তাদের বোঝাতে পারবেন না আপনি। এরা সেই সন্ত্রাসবাদীরাই যারা নাগরিকত্ব না হারিয়েও রক্তগঙ্গা বইয়ে দিয়েছিল।’

কঙ্গনার এই ‘সন্ত্রাসবাদী’ মন্তব্যের বিরুদ্ধে সেই সময় অনেকেই সোচ্চার হয়ে তার কুশপুত্তলিকাও পুড়িয়েছে। আবার সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে উপহাসও করেছিলেন কঙ্গনা। আর এসব নিয়েই ইতিমধ্যেই কৃষকদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করায় এই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার অনুমতি দিয়েছে কর্ণাটকের টুমকুরু জেলার এক আদালত। এবার আবার নতুন করে মুম্বাইতে আরেকটি আইনি ঝামেলায় জড়ালেন কঙ্গনা।

The post সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর অভিযোগে কঙ্গনা ও তার বোনের বিরুদ্ধে মামলা appeared first on Sarabangla | Breaking News | Sports | Entertainment.

Leave a Reply

%d bloggers like this: