ইসলাম টাইমস ডেস্ক: চীনের সমর্থনে কাশ্মির তার হারানো মর্যাদা ফিরে পাবে। রোববার এক জাতীয় ইলেক্ট্রনিক সংবাদমাধ্যকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমনই দাবি করলেন জম্মু কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ। তার মতে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনা আগ্রাসনের মূল কারণ ৩৭০ ধারা বিলোপ। অর্থাৎ কাশ্মির বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার ভারতের সিদ্ধান্তই চীনকে প্ররোচিত করেছে বলে দাবি ফারুক আবদুল্লাহর।

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা ও ৩৫এ ধারার অবলুপ্তি ঘটায় ভারতের এনডিএ সরকার। ফলে ভূস্বর্গ তার বিশেষ মর্যাদা হারায়। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের ফলে জম্মু একটি এবং কাশ্মীর ও লাদাখ মিলে আরেকটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। নয়া দিল্লির এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেন কাশ্মিরের একাধিক রাজনৈতিক নেতা। রোববার কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে গ্রহণযোগ্য নয় বলে মত প্রকাশ করেছেন ফারুক আবদুল্লাহ।

ইলেক্ট্রনিক সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জানান, “কাশ্মির নিয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত ওরা (চীন) কোনো দিন মেনে নেয়নি। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ওরা যা করছে তার মূলে রয়েছে ৩৭০ ধারার বিলোপ। আশা করি, ওদের (চীন) সাহায্যেই কাশ্মিরে ফের ৩৭০ ধারা ফিরবে।”

 

এদিনের সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও একহাত নেন ফারুক। বলেন, “আমি চীনের প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণ জানাইনি। প্রধানমন্ত্রী তাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। চেন্নাই নিয়ে গিয়ে একসঙ্গে খাবার খেয়েছেন।” তার আরো অভিযোগ, সংসদের বাদল অধিবেশনে তাকে কাশ্মিরের মানুষের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কথা পর্যন্ত বলতে হয়নি।

লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা নিয়ে আগেই উষ্মা প্রকাশ করেছে চীন। চীনের সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদ মাধ্যম গ্লোবাল টাইমসকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন জানিয়েছেন, “চীন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে লাদাখকে স্বীকৃতি দেয় না। ভারত বেআইনিভাবে এটিকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করেছে।” এমন পরিস্থিতিতে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এমন মন্তব্য বিতর্ক আরো বাড়াবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।
সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

The post সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহর আশা, চীনের সমর্থনে কাশ্মির হারানো মর্যাদা ফিরে পাবে! appeared first on ইসলাম টাইমস.

Leave a Reply

%d bloggers like this: