শক্তিমত্তার দিক থেকে দিল্লি ক্যাপিটালসের চেয়ে যে খুব একটা পিছিয়ে নেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স সেটি আইপিএলের শুরু থেকেই দেখা গেছে। এবার টুর্নামেন্টের ২৭তম ম্যাচে তারই প্রতিফলন দেখা গেল নতুন করে। এদিন আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে স্রেয়াশ আইয়ারের দিল্লিকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে রোহিত শর্মার মুম্বাই। ফলে ১.৩২৭ রান রেট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে তারা। বর্তমানে দিল্লি এবং মুম্বাই উভয় দলেরই পয়েন্ট ১০।

এই ম্যাচে দিল্লির দেয়া ১৬৩ রানের মাঝারি লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রোহিতবাহিনী। জয়ের জন্য শেষ ওভারে ৭ রান প্রয়োজন ছিল মুম্বাইয়ের। মার্কাস স্টয়নিসের করা ২০তম ওভারের প্রথম বলে লেগ সাইড দিয়ে চার মেরে ব্যবধান কমিয়ে আনেন ক্রুনাল পান্ডিয়া। এরপরের বলে এক রান নিয়ে কাইরন পোলার্ডকে স্ট্রাইক দেন তিনি। ওভারের তিন নম্বর বলে আরেকটি সিঙ্গেল নিয়ে ব্যবধান আরও কমিয়ে আনেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার পোলার্ড। সেসময় ৩ বলে জয়ের জন্য এক রান দরকার ছিল মুম্বাইয়ের। পরবর্তী বলে স্কয়ার লেগ অঞ্চল দিয়ে বল সীমানা ছাড়া করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন ক্রুনাল।

এদিন মুম্বাইয়ের হয়ে ব্যাট হাতে নিজেকে আবারো প্রমাণ করেছেন প্রোটিয়া রিক্রুট কুইন্টন ডি কক। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে গত ৪ অক্টোবরের ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি পাওয়া এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান আজ আবারো বিস্ফোরক ব্যাটিং করেছেন। মাত্র ৩৬ বলে ৩টি ছক্কা এবং ৪টি চারের সাহায্যে ৫৩ রানের অনবদ্য এক ইনিংস খেলেন তিনি। একই সঙ্গে দলের জয়ে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন ২৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

ডি কক ছাড়াও ব্যাট হাতে উজ্জ্বল ছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদব। ৩২ বলে ৫৩ রানের দারুণ এক ইনিংস আসে তাঁর ব্যাট থেকে। একটি ছক্কা এবং ৬টি চারের সাহায্যে নিজের ইনিংসটি সাজান যাদব। ২২ বছর বয়সী বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ইশান কিশানও নিজের জাত চিনিয়েছেন। ১৫ বলে ২টি ছক্কা এবং ২টি চারের মাধ্যমে ২৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। দিল্লির হয়ে ৪ ওভারে ২৮ রান খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার কাগিসো রাবাদা। আর একটি করে উইকেট নেন দুই স্পিনার অক্ষর প্যাটেল, রবীচন্দ্রন অশ্বিন এবং অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিস।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন দিল্লি দলপতি স্রেয়াশ আইয়ার। পরবর্তীতে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার শিখর ধাওয়ানের হাফ সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৬২ রান সংগ্রহ করে দিল্লি। ৫২ বলে ৬৯ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন ধাওয়ান। যেখানে একটি ছক্কাসহ ৬টি চার মারেন তিনি। চলমান টুর্নামেন্টে এটাই ধাওয়ানের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি। অধিনায়ক আইয়ারও অবশ্য খারাপ খেলেননি এদিন। ৫টি চারের সাহায্যে ৩৩ বলে ৪২ রান এসেছে তাঁর ব্যাট থেকে। তবে এরপরও মুম্বাইয়ের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে দলীয় সংগ্রহ খুব একটা বড় হয়নি দিল্লির।

বল হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন বাঁহাতি স্পিনার ক্রুনাল পান্ডিয়া। ৪ ওভারে ২৬ রান খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন তিনি। আর ৩৬ রানে একটি উইকেট নিয়েছেন মুম্বাইয়ের কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্ট।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

The post শক্তিমত্তার লড়াইয়ে বিজয়ী মুম্বাই first appeared on ArthoSuchak.

Leave a Reply

%d bloggers like this: