ইসলাম টাইমস ডেস্ক: খুন হত্যা ধর্ষণ কোনোটার যেন লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না।  মাগুরার নবগঙ্গা নদীতে দুই দিন তল্লাশির পর রবিবার (১১ অক্টোবর) একটি ডিঙ্গা নৌকার সঙ্গে মাহিদের (৭) হাত বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। ৭ অক্টোবর সদর উপজেলার বারাশিয়া গ্রাম থেকে মাহিদ নিখোঁজ হয়। পূর্ব শত্রুতার প্রতিশোধ নিতেই এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের।

পুলিশ জানায়, মাহিদকে ফিরিয়ে দিতে পরিবারের কাছে ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়। এ ঘটনার পর পরিবারের পক্ষ থেকে মাগুরা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পুলিশ ফোন ট্র্যাকিং করে প্রতিবেশী ইমরান আলি আসলাম এবং তার ১৪ বছর বয়সি ছেলে রোহানকে আটক করে। তাদের স্বীকারোক্তি ভিত্তিতে বারাশিয়া গ্রামে নবগঙ্গা নদীতে দুই দিন তল্লাশির পর একটি তালের ডিঙ্গা নৌকার সঙ্গে হাত বাঁধ অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাবাদে রোহান জানায়, মাহিদকে ঘটনার দিন দুপুরে বানর দেখানো কথা বলে ডোঙ্গা নৌকায় তোলে। তারপর নৌকাটি মাঝ নদীতে এনে তার হাত বেঁধে জীবন্ত অবস্থায় ডুবিয়ে দেয়।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন জানান, শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে হত্যা মামলার প্রস্ততি চলছে।

The post মাগুরায় প্রতিশোধ নিতে প্রতিবেশীর শিশুকে হাঁত বেধে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা appeared first on ইসলাম টাইমস.

Leave a Reply

%d bloggers like this: