বিশ্ব নবী হ’জরত মোহাম্মাদ (সা.)-এর কবর মোবারক জিয়ারত করা মোস্তাহাব। তবে কেবল মোস্তাহাব মনে করাই শেষ কথা নয়, বরং তা উত্তম ইবাদতও বটে। এদিকে করো’নার প্রাদুর্ভাবের কারণে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের রওজা শরীফে জিয়ারত (দর্শন, সালাম পেশ) দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল। জনসাধারণের প্রবেশ স্থগিত হওয়ার ৭ মাস পর আগামীকাল রোববার (১৮ অক্টোবর) থেকে রওজা শরীফ জিয়ারত ও সালাম পেশ করার সুযোগ পাচ্ছেন মু’সলমানরা।

সৌদি আরবের হ’জবিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্ম’দ বেনতেন জানান, ১ রবিউল আউয়াল মোতাবেক ১৮ অক্টোবর থেকে উম’রার নিবন্ধনের জন্য নির্দিষ্ট অ্যাপ ‘ইতামা’রনা’য় নিবন্ধন করে রওজা শরীফ জিয়ারত করা যাবে। করো’না মহামা’রির শুরুর দিকে সৌদি আরবের সব ম’সজিদ বন্ধ করে দেওয়ার পর ৩১ মে থেকে ম’সজিদে নববী খুলে দেওয়া হলেও পুরাতন ম’সজিদ ও রিয়াজুল জান্নাতে নামাজ এবং রওজা শরীফের জিয়ারত স্থগিত ছিল। রোববার থেকে সবই চালু হতে যাচ্ছে।

রওজা শরীফ জিয়ারতের জন্য পুনরায় খুলে দেওয়া উপলক্ষে হারামাইন শরিফাইন অধিদপ্তরের প্রেসিডেন্ট শায়খ আবদুর রহমান আস সুদাইস দুই ম’সজিদের সেবা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। শনিবার (১৭ অক্টোবর) তার ম’দিনা সফর এবং ম’সজিদে নববীতে এশার নামাজের ই’মামতি করার কথা রয়েছে।

মহানবী (সা.)-এর রওজা জিয়ারত

ইতামা’রনা অ্যাপে নিবন্ধনকারীরা নির্দিষ্ট গেইট দিয়ে রওজা শরীফে প্রবেশ করবেন। নিবন্ধনের সময় রিয়াজুল জান্নাতে নামাজ আদায় ও রওজায় সালাম পেশের সময় উল্লেখ করে দেওয়া হচ্ছে। একজন জিয়ারতকারী ত্রিশ মিনিট সময় পাবেন নামাজ আদায় ও সালাম পেশ করার জন্য।

Leave a Reply

%d bloggers like this: