ইসলামাবাদ : ফের হিন্দু মন্দির তছনছ করল দুষ্কৃতীরা। ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের বাদিন এলাকায়। গোটা ঘটনার কড়া নিন্দা করেছেন পাক সমাজকর্মী ও জাস্টিস ফর মাইনরিটিস সংগঠনের মুখপাত্র আনিলা গুলজার।

গুলজার বলেন সিন্ধ প্রদেশে আগে যেখানে ৪২৮টি মন্দির ছিল, সেখানে পাক প্রশাসনের বদান্যতায় ২০টি মন্দিরে এসে ঠেকেছে। রীতিমতো ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে পাকিস্তানে। এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। ১০ই অক্টোবর বাদিনে শ্রীরাম মন্দির ভেঙে তছনছ করা হয়। এই ঘটনার উল্লেখ করে নিজের ফেসবুক পোস্টে কড়া সমালোচনা করেন গুলজার। বাদিনের কারিও ঘানওয়ার এলাকার মন্দিরটিতে লুঠপাট চালিয়ে ভেঙে ফেলা হয়েছে বলে খবর।

মিডিয়া রিপোর্ট জানাচ্ছে, এটাই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিক বার দুষ্কৃতী হামলার শিকার হতে হয়েছে পাকিস্তানে অবস্থিত মন্দিরগুলিকে। ২০১৯ সালেও একাধিক মন্দির ভাঙা হয়েছে পাকিস্তানে। সেপ্টেম্বর মাসের সেই ঘটনায় তীব্র বিতর্কের মুখে পড়তে হয় পাক প্রশাসনকে। তবে তাতে যে বিশেষ লাভ হয়নি, তা বলাই বাহুল্য।

এদিন জানা গিয়েছে যে এলাকায় ওই মন্দির ছিল, সেখানে মুসলিম ধর্মাবলম্বীরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। মন্দির ভাঙার পাশাপাশি, এলাকার সংখ্যালঘু হিন্দুদের প্রাণে মারার হুমকিও দিয়েছে দুষ্কৃতীরা বলে অভিযোগ। মহম্মদ ইসমাইল নামে এক নেতার প্ররোচনায় মন্দিরে হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনার ভিত্তিতে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে এখনও কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি বলে খবর।

সংখ্যালঘুদের ওপর অত্যাচার ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা পাকিস্তানে নতুন নয়। দিন কয়েক আগেও গিলগিট বালটিস্তান এলাকা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় উত্তাল হয়ে ওঠে। মানবাধিকার লঙ্ঘনের ক্ষেত্রে যোগ্য উত্তরাধিকার বহন করে চলেছে পাকিস্তান বলে ব্যাখ্যা করেছিল ভারত। রাষ্ট্রসংঘে ভারতের ফার্স্ট সেক্রেটারি অ্যাট হিউম্যান রাইটস রেকর্ড পবন বাধে জানিয়ে ছিলেন পাকিস্তান এমন একটি দেশ, যারা অসহিষ্ণুতা ও মানবাধিকার লঙ্ঘন করেই ঐতিহ্য তৈরি করছে।

পবন বাধে বলেছিলেন পাকিস্তানের সংস্কৃতি সন্ত্রাসবাদের। এই দেশের চরিত্র সবাই চেনে। তাই নতুন করে কিছু বলার নেই। আন্তর্জাতিক মঞ্চে বারবার ভারত পাকিস্তান স্বরূপ তুলে ধরেছে। সমর্থনও পেয়েছে বহু দেশের। তবু পাকিস্তানের চেহারা বদলায়নি। ভারতের প্রতিনিধি বলেছিলেন, পাকিস্তানে প্রতিদিন অসংখ্য সংখ্যালঘু মানুষ তাঁদের ধর্মাধিকার হারান, মানবাধিকার লঙ্ঘন পাকিস্তানে নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা।

The post ভেঙে তছনছ করা হল ‘শ্রীরাম’ মন্দির, কড়া নিন্দা পাক সমাজকর্মীর

appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.

Leave a Reply

%d bloggers like this: