ধ”র্ষ’করা অ’শা’লীন পো’শাক দেখে উ’দ্বুদ্ধ হয়—ঢাকাই চল’চ্চিত্রের আ’লো’চিত চিত্র’নায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জ”লিল এক ভি’ডিও বার্তায় এমন’টা দাবি করেন। এরপর নেটি’জে’নদের একাং’শের তু’মুল সমা’লো’চনার মুখে পড়ে’ন অনন্ত।

অন’ন্তর এ’মন বক্তব্যে ক্ষোভ উগ’ড়ে’ছেন অ’ভিনে’ত্রী ও জা’তীয়’ চলচ্চি’ত্র পুরস্কা’রপ্রা’প্ত সংগী’তশিল্পী’ মেহের আফ’রোজ শাওন। তিনি অ’নন্ত’কে বয়ক’টের ঘোষ’ণা দিয়েছেন। এ বিষয়ে বেশক’জন অ’ভিনেত্রী প্র’তিবাদ জানি’য়েছেন। লাক্স তারকা অ’ভি’নেত্রী আজ’মেরী হক বাঁধ’নের সঙ্গে যোগা’যোগ করা হলে তার ভা’বনার কথা জা’নিয়ে’ছেন।

অনন্ত জ’লিলের এমন বক্ত’ব্যে মো’টেও অ’বা’ক হননি বাঁধন। বিষ’য়টি ব্যাখ্যা করে এ অ’ভি’নেত্রী বলেন—অনন্ত জ’লিল সাহেব যে বক্তব্য দিয়েছেন তা গু’টি ক’য়েক মানুষের ভাবনা নয়। কেউ যদি ভে’বে থাকেন অল্প সংখ্যক মানুষ এ ধর’নের ভাবনা পো’ষণ করেন তবে ভুল ভাব’ছেন।

অনন্ত জলিল

এমন চিন্তা জ’লিল সাহেব একাই পো’ষণ করেন না। পু’রুষ’তান্ত্রিক সমা’জে এই ধর’নের চি’ন্তা নারী-পুরু’ষ উভ’য়ে পো’ষণ করেন। ধ”র্ষ’ক আ’মা’দের মাঝেই রয়েছে—তেমনি এ ধ’রনে’র চি’ন্তা ভাব’না যারা পো’ষণ করে’ন তারাও আ’মাদের আ’শে’পাশে’ই রয়েছেন।

একজন সচেতন নাগ’রিক হি’সেবে প্রতিটি অ’ন্যায়ে’র বি’রু’দ্ধে আ’ওয়াজ তোলা নৈতিক দায়িত্ব। কিন্তু সমা’জের’ বাস্ত’ব’তা পু’রোপু’রি উ’ল্টো। বাঁধন ব’লেন—ধ”র্ষণ সং’ক্রা’ন্ত এ’কাধি’ক পো’স্ট আমি ফে’সবুকে দিয়ে’ছি। ওখা’নে খে’য়াল ক’রলে দেখ’বেন, কত মানুষ এ ধর’নে’র চিন্তা লাল’ন করেন। কিন্তু অন’ন্ত জলি’ল সাহে’ব ভেত’রে’র চিত্র’টি বা’ইরে প্রকাশ করার কারণে স’বার চোখে পড়ে’ছে।

অনন্ত জলিল সা’হেবে’র বক্তব্য শুনে আ’কাশ থেকে পড়ে’ছি বি’ষয়টি কি’ন্তু তা নয়। কারণ ওনার কাছ থেকে এর বে’শি কিছু আশা করিনি। সস্তা খ্যা’তি’র জন্য তিনি এ পর্যন্ত যা যা ক’রেছেন সবই স্টান্টবা’জি। এবারো এই ব’ক্তব্য দিতে গিয়ে হয়’তো ভেবে’ছেন অনে’কের সম’র্থন পাবেন এবং তিনি সম’র্থন পাচ্ছে’নও। আপনি ভি’ডিওর কমেন্ট ব’ক্সে গি’য়ে দেখেন প্রমা’ণ পেয়ে যাবে’ন। কিন্তু দুর্ভা’গ্য’জনক হলো—আমা’দে’র মতো ক’য়েকজন এ বিষয়ে কথা বলবে’ন আর কা’উকে পাবেন না।

বর্তমান পরি’স্থি’তিতে না’রীদে’র চি’ন্তা’ধারা ব্যা’খ্যা করে বাঁ’ধন বলেন—আমা’দের দে’শের নারীদের এ”মনভা’বে শি’ক্ষা দেও’য়া হয়ে’ছে যে, নিজে’কে ভালো প্র”মা’ণ করা’র জন্য অন্য এক’জন না”রীকে টে’নেহিঁ’চড়ে নামা’তেও কুণ্ঠা বোধ ক’রেন না। যে পু’রুষ তার বা’ড়িতে ডো’মেস্টি’ক ভা’য়ো’লেন্স কর’ছেন তাকে নিয়েও কো’নো কথা তারা ব’লেন না। অথচ এ’কটি মে’য়ে কেমন পো’শাক পরে ধ”র্ষণের বি’রুদ্ধে প্র’তিবা’দ করছেন সে’টা নিয়ে এ’সব নারী’রা ঠিকই সমা’লো’চনা করেন।

যে’কো”নো চিন্তা পো’ষণের জন্য টাকা, সম্মান আর প্রা’প্তি প্রয়ো’জ’ন হয় না। একজন দিনমজুর কিংবা ‘রিক’শা চা’লক অ’নেক শিক্ষিত মা’নুষের চেয়ে উন্ন’ত চিন্তা পো’ষণ করতে পারে’ন। স্ব’শি’ক্ষা বলে একটি শব্দ রয়ে’ছে। কিন্তু স্বশি’ক্ষা’য় সবাই শি’ক্ষি’ত হতে পারে’ন না। এজন্য চর্চার প্র’য়ো’জন, যা এই সমা’জে অ’নেক কম বলে মনে করে’ন বাঁ”ধন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: