তুরস্ক কৃষ্ণ সাগরে আরো একটি বিশাল প্রাকৃতিক গ্যাস ক্ষেত্র পেয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। এটি তার দেশের মোট গ্যাস রিজার্ভের পরিমাণ ৪০৫ বিলিয়ন ঘনমিটারে বৃদ্ধি করবে।

‘সাকারিয়া গ্যাসক্ষেত্রের টুনা-১ কূপে প্রাকৃতিক গ্যাসের মজুতের পরিমাণ ৪০৫ বিলিয়ন ঘনমিটারে পৌঁছেছে, এরদোয়ান গ্যাস অনুসন্ধানী জাহাজ ফাতিহে পরিদর্শন শেষে এ তথ্য জানান। -খবর আনাদোলু নিউজ এজেন্সি।

তিনি বলেন, কৃষ্ণ সাগরে এ পর্যন্ত পাওয়া খনিজ গ্যাস আমাদের অতীত ইতিহাসের সবচেয়ে বড় আবিস্কার।

বুধবার ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (একে) পার্টির ডেপুটিদের সঙ্গে এক বৈঠকে এরদোগান বলেন, আমরা ব্যক্তিগতভাবে কৃষ্ণ সাগরে চলমান অনুসন্ধান নিয়ে কাজ করবো। একই সঙ্গে নতুন মজুতের পরিমাণ ঘোষণা করবো।

এর আগে ২১ আগস্ট তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ইস্তানবুলে এক সংবাদ সম্মেলনে কৃষ্ণ সাগরে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় গ্যাস ক্ষেত্রের সন্ধান পাওয়ার ঘোষণা দেন। তার দুই মাসের মাথায় তার চেয়েও বড় গ্যাস ক্ষেত্রের খবর দিলেন তিনি।
আগের খনিজটিতে ৩২০ বিলিয়ন কিউবিক মিটার গ্যাস মজুত রয়েছে বলে জানানো হয়।

তুরস্ক ২০২৩ সাল নাগাদ এই গ্যাস ক্ষেত্র থেকে উত্তোলিত গ্যাস ব্যবহার শুরু করবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

The post কৃষ্ণ সাগরে আরেকটি বিশাল গ্যাস ক্ষেত্র পেলো তুরস্ক appeared first on bd24report.com.

Leave a Reply

%d bloggers like this: