<

p style=”text-align: justify;”>চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের দুদিনের সাম্পান উৎসবের সমাপনী দিনে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিযোগিতায় নয়টি দলকে পেছনে ফেলে ‘শিকলবাহা ব্লকপাড়া শেখ আহমদ মাঝি’র দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে নগরীর অভয়মিত্র ঘাট (নেভাল টু) এলাকায় উৎসবের সমাপনী পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে কর্ণফুলী নদীতে দুদিনের সাম্পান উৎসবের উদ্বোধন হয় শুক্রবার সকালে।

সমাপনী উৎসবে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘কর্ণফুলী নদীকে ঘিরে যে আনন্দময় ও একটি আয় উপার্জনমুখী জীবনধারা দীর্ঘকাল ধরে চলে আসছে, সেটি আজ অনেকাংশে তার ঐতিহ্য হারিয়েছে। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সেই ধারা ফিরিয়ে আনার তাগিদ দিয়ে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতাসহ দুদিনের সাম্পান উৎসবের আয়োজন করেছে। কর্ণফুলী নদী বাঁচলে আমরাও বাঁচব, দেশও বাঁচবে।’

নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘কর্ণফুলীর পাড়ের প্রায় তিনশ’রও বেশি কারখানার বর্জ্য, এই শহরের প্রায় ৬০ লাখ মানুষের মানববর্জ্য, পলিথিন-প্লাস্টিক প্রতিদিন নদীতে পড়ে। বর্তমানে নদীর প্রায় সাত মিটার গভীরতা নষ্ট হয়ে গেছে শুধু পলিথিনের কারণে। আমরা জেনে বা না জেনে নদীটিকে গলা টিপে হত্যা করছি)। কর্ণফুলীসহ দেশের নদীগুলো বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নদী কমিশন গঠন করেছেন। কিন্তু সরকারর সঙ্গে আমরা নদীপাড়ের নগরবাসীকেও সচেতন হতে হবে। নইলে এই নদী অচিরেই অস্তিত্ব হারাবে।’

এই নদী বাঁচিলে চট্টগ্রাম বন্দর বাঁচিবু, বন্দর বাঁচিলে দেশের অর্থনীতি বাঁচিবু (কর্ণফুলী বাঁচলে চট্টগ্রাম বন্দর বাঁচবে,দেশের অর্থনীতি বাঁচবে)। এই হতাল্লাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কর্ণফুলী নদী রক্ষায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে সাম্পান উৎসব গরিরদ্যে (সেজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কর্ণফুলী নদী রক্ষায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে এই সাম্পান উৎসব আয়োজন করা হয়েছে)

নগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা সফর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য সাইফুদ্দীন খালেদ বাহার, হাজী বেলাল আহমেদ, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, কর্ণফুলী নদী সাম্পান মাঝি ফেডারেশনের সভাপতি এস এম পেয়ার আলী, চট্টগ্রাম ইতিহাস ও সাংস্কৃতিক গবেষণা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান আলীউর রহমান, মাঝি কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কর্ণফুলী নদীর দক্ষিণ পাড় ইছানগর থেকে নৌকা বাইচ শুরু হয়ে উত্তর তীরে অভয়মিত্র ঘাটে এসে শেষ হয়। এতে ১০টি দল অংশ নেয়। এতে প্রথম হয়েছে শিকলবাহা ব্লকপাড়া শেখ আহমদ মাঝি’র দল, দ্বিতীয় হয়েছে ইছানগর বাংলাবাজার ঘাট সাম্পান মলিক সমিতি সভাপতি মো. লোকমানের দল, তৃতীয় হয়েছে চরপাথরঘাটা মাদ্রাসা পাড়ার মো. তারেকের দল। তাদের পাশাপাশি প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া সাতটি দলকে সান্ত্বনা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

The post কর্ণফুলীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় শেষ হলো ২ দিনের সাম্পান উৎসব

appeared first on Sarabangla | Breaking News | Sports | Entertainment.

Leave a Reply

%d bloggers like this: