মে’হেরপু’র সদ’র উপ’জে’লার ম’দনা’ডা’ঙ্গা গ্রা’মের মে’ছের আলী আজ থেকে ঠিক ৩২ বছর আ’গে অর্থাৎ ১১ সেপ্টে’ম্বর সকা’লে হাঁট’তে বের হয়েছি’লেন। হাঁ’ট’তে হাঁট’তে তিনি যখন মে’হের’পুর-কু’ষ্টিয়া ‘স’ড়’কের জা’মত’লা নাম’ক স্থা’নে আ’সে’ন তখ’ন এক’টি ট্রা’ক তা’কে ‘ধা’ক্কা দেয়। এ’তে ঘ’টনা’স্থ’লেই তি’নি’ মা’রা’ যান।

প্রতি’দি’নের মতো আজ সকা’লেও হাঁ’তে বে’র হয়ে’ছি’লেন সেই মে’ছে’র আ’লীর বৃ’দ্ধ স্ত্রী রো’কে’য়া খা’তুন। সকাল সা’ত’টার দিকে তিনি যখ’ন মে”হেরপুর-কু’ষ্টিয়া স’ড়কে’র জা’মত’লা না’মক স্থা’নে স’ড়’কে উঠেন, ঠিক তখ’নই এ’কটি মি’নি ট্রা’ক তা’কে চা’পা দেয়। এতে ঘট’না’স্থ’লেই তিনি মা’রা’ যা’ন। অর্থাৎ, স্বা’মী’র মৃ’ত্যু’র’ ৩২ বছ’র প’ ঠিক একই তারিখে, একই স’ময়ে, একই স’ড়কে’র একই স্থা’নে স্ত্রীও মা’রা’ গে’লে’ন।

নি’হ’ত রো’কে’য়া খা’তু’নের পু’ত্রব’ধু ই’স’মোতা’রা খা’তুন জা’নান, ৩২ বছর পূ’র্বে আ’মা’র শ’শু’র নি’হ’ত হও’য়ার পর শা’শু’ড়ি এক ছে’লে ও এক মে’য়ে’সহ সবা’ই’কে নি’য়ে থা’কতে’ন। জ’মি’জমা যা আ’ছে তা’তে ভা’ল’ই চ’ল’ছিল। কি’ন্তু একই দি’নে, এক’ই স্থা’নে তা”দে’র মৃ’ত্যু’ মে’নে’ নেয়া ক’ষ্ট’ক’র।

বিধবা নারী

মে’হে’রপুর সদর থানা’র এস’আই মু’স্তা’ফিজুর রহমান জানান, রো’কে’য়া খাতুন প্রতিদিনের ন্যা’য় সকা’লে রা’স্তা’য় হাঁটতে বের হন। রা’স্তা’র পা’শ দিয়ে হেঁ’টে যা’ওয়ার সম’য় পি’ছন দিক থেকে এক’টি মি’নি ট্রা’ক তা’কে চা’পা দি’য়ে মেহে’রপু’রের দি’কে পা’লি’য়ে যায়। ট্রা’কে’র চা’ল’ক ও গা’ড়ি’র স’ন্ধা’নে ‘কাজ কর’ছে পুলি’শ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: